ছেলের মৃত্যুর খবর শুনে মারা গেলেন বাবা

                                                                                                                                                                                                                  সন্তানের প্রতি মা বাবার ভালবাসার তুলনা গোটা পৃথিবীতে নেই। সন্তান হারানোর শোক যে সকল বাবা মায়ের সইতে হয় তারাই শুধু জানেন সন্তান হারানোর ব্যাথা।

ছেলে কাকন মিয়া ভাড়ায় মোটরসাইকেল চালাতেন। গত বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে ছিনতাইকারীরা খুন করে তাকে। ছেলের এমন মর্মান্তিক মৃত্যুর খবর সইতে পারেন নি তার বাবা নেত্রকোণা জেলার পূর্বধলা উপজেলার আবুল কাসেম। খবর শুনে স্ট্রোকে আক্রান্ত হয়ে মারা যান তিনি। স্থানীয় লোকজন ও পরিবারের বরাতে এমন তথ্যই পাওয়া গেছে। তবে দুবৃত্তরা ছিনতাইকারী ছিল কিনা সে বিষয়ে এখনও নিশ্চিত নয় পুলিশ।

নেত্রকোণা জেলার বিভিন্ন উপজেলায় ভাড়ায় মোটরসাইকেল চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করেন অনেকে। ঝুকি থাকা সত্তেও জীবিকার টানে কেউ কেউ অনেক রাত পর্যন্ত যাত্রী বহন করেন। তেমনি একজন ভাড়ায় মোটর সাইকেল চালক নেত্রকোণা জেলার পূর্বধলা উপজেলার বাশকাকুনী ইউনিয়নের গয়লাপাড়া গ্রামের কাকন মিয়া (২১)। গতকাল মধ্যরাতে শ্যামগঞ্জ মোড় থেকে যাত্রী নিয়ে পূর্বধলা-দেওডোকুন বাজার সড়কের ছোছাউড়া নামক স্থানে পৌছালে দুর্বৃত্তরা তার উপর হামলা চালায়। এই সময় হামলাকারীদের ধারাল অস্ত্রের আঘাতে গুরুতরভাবে আহত হন তিনি। তার চিৎকারে আশেপাশের মানুষ জড় হলে সড়কে পড়ে দুর্বৃত্তরা। স্থানীয় লোকজন তাকে প্রথমে শ্যামগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও পরে ময়ময়সিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। এই সময় ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

আর সন্তানের এমন মর্মান্তিক মৃত্যুর খবর শুনে তৎক্ষণাৎ নিজ বাড়িতে স্ট্রোকে আক্রান্ত হন তার বাবা আবুল কাসেম (৬৫)। আর পাড়ি জমান না ফেরার দেশে।

Source : ntvbd.com